মুড়ি খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা

আসসালামু আলাইকুম, আজকে আমরা জানবো মুড়ি খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা নিয়ে।

মুড়ির সঙ্গে চা খাওয়ার মজাই আলাদা! কম ক্যালোরির পেট ভরানোর খাবার হিসেবে এখন উচ্চবিত্ত মহলেও মুড়ির প্রচলন বাড়ছে। তবে জানেন কি? নিয়মিত মুড়ি খাওয়ার অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে। ওজন কমানোসহ শরীরের ক্যালসিয়ামের ঘাটতি রোধে মুড়ি কার্যকরী এক উপাদান।

জেনে নিন, মুড়ি খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা:

মুড়ির পুষ্টিগুণ :

১৪ গ্রাম মুড়িতে রয়েছে ৫৬ ক্যালরি। কার্বোহাইড্রেটস ১২.৬ গ্রাম, প্রোটিন ১ গ্রাম, ফ্যাট মাত্র ০.১ গ্রাম, ফাইবার ০.২ গ্রাম, পটাসিয়াম ১৬ মিলিগ্রাম, আয়রন ৪.৪৪ মিলিগ্রাম, ম্যাগনেসিয়াম ৪ মিলিগ্রাম, ফসফরাস ১৪ মিলিগ্রাম, থিয়ামাইন ০.৩৬ মিলিগ্রাম এবং নিয়াসিন ৪.৯৪ মিলিগ্রাম।

মুড়ি খাওয়ার উপকারিতা:

অ্যাসিডিটি নিরাময়:

লুচি বা রুটি খেয়ে অ্যাসিডিটি হয়ে গেলে তা নিমেষে নির্মূলের উপায় মুড়ি। শুধ তাই নয় রিচ খাবার খেয়ে বদহজম হয়ে গেলেও মুড়ির ভূমিকা জুড়ি মেলা ভার।

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা:

মুড়ি ফ্যাটলেস। তাই যারা ওজন কমাতে চাইছেন দিনে বেশ কয়েকবার মুড়ি খেয়ে থাকুন। দেখবেন উপকার পাবেন হাতেনাতে। মুড়িতে সোডিয়াম থাকায় পেট অনেকক্ষণ ভরা থাকে।

হৃদরোগের ঝুঁকি কমায় মুড়ি:

মুড়িতে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন বি ও মিনারেল থাকায় হৃদরোগের ঝুঁকি অনেকটাই কমে যায়।

আরো পড়ুন: সাদা তিলের উপকারিতা

বিকেলের নাস্তা মুড়ি:

কম ক্যালরির পেট ভরানোর খাবার মানেই মুড়ি। যাদের বার বার খিদে পায়, অথচ সারাদিনে বেশিরভাগ সময়ে অফিসে বা বাড়িতে বসে কাজ করার জন্য শরীরে ক্যালরির চাহিদা কম, তাদের জন্য বিকেল বা সন্ধ্যার দিকে মুড়ি হতে পারে আদর্শ খাবার।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে:

মুড়িতে সোডিয়ামের পরিমাণ কম। তাই এটি রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে। পেট ভরে থাকে দীর্ঘক্ষণ।

পেটের অসুখে মুড়ি:

পেটের গোলমালে অবস্থায় শুকনো মুড়ি কিংবা ভেজা মুড়ি খেলে তাৎক্ষণিক উপকার পাওয়া যায়।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়:

মুড়িতে ভিটামিন বি ও প্রচুর পরিমাণে মিনারেল থাকায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। পাশাপাশি হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়।

মেটাবলিজম বৃদ্ধি করে মুড়ি:

মুড়িতে থাকা ফাইবার শরীরের মেটাবলিজম বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

হাড় ও দাঁত শক্ত হয়:

মুড়িতে থাকা ক্যালসিয়াম ও আয়রন থাকায় দাঁত ও হাড়ের গঠন শক্ত হয়। তাই বাচ্চাদের অবশ্যই মুড়ি খাওয়ানো উচিত। এছাড়াও মুড়িতে শর্করা থাকায় শরীরের পক্ষে যথেষ্ট উপকারী।

আরো পড়ুন: দারুচিনির উপকারিতা

এই ছিলো মুড়ি খাওয়ার উপকারিতা:

আমাদের লেখা আপনার কেমন লাগছে ও আপনার যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তবে নিচে কমেন্ট করে জানান । আপনার বন্ধুদের কাছে পোস্টটি পৌঁছে দিতে দয়া করে শেয়ার করুন । পুরো পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *