পেয়ারা পাতার উপকারিতা ও অপকারিতা

আসসালামু আলাইকুম। আজকে আমরা জানবো পেয়ারা পাতার উপকারিতা ও অপকারিতা নিয়ে।

বেশিরভাগ মানুষই পেয়ারা খেতে পচ্ছন্দ করেন, পেয়ারায় প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে, তবে পেয়ারার পাতার মধ্যেও যে লুকিয়ে আছে অনেক গুণাগুণ তা কি আমরা সবাই জানি।

চলুন জেনে নিই, পেয়ারা পাতার উপকারিতা ও অপকারিতা:

পেয়ারার পাতার উপকারিতা :

পেটের সমস্যা দূর করে:

পেয়ারা পাতার মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ব্যাকটেরিয়া প্রতিরোধকারী উপাদান আছে যেগুলি পেটের মধ্যে আরো শক্তিশালী করে তোলে এর ফলে জীবাণু বৃদ্ধি পায় না। যার ফলে আমাদের মাঝে মধ্যে পেটের নানা সমস্যা যেমন – ডায়রিয়া, বদহজম কিংবা হজমে গোলমাল ইত্যাদি আর দেখা দেয় না।

ক্যান্সার প্রতিরোধ করে:

পেয়ারা পাতার মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যেগুলি স্তন ক্যান্সার, জরায়ু ক্যান্সার এমনকি মুখের ক্যান্সারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াই। একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে জরায়ুর মধ্যে ক্যান্সার বৃদ্ধির জন্য যা দায়ী সেটিকে প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে পেয়ারা পাতার রস।

সর্দি কাশি সারিয়ে তোলে:

আবহাওয়া পরিবর্তনের সময় আমরা অনেকেই খুশখুশে কাশি কিংবা সর্দিতে ভুগে থাকি।

পেয়ারা পাতার রস খেলে সেই সকল সমস্যাগুলো দূর হয়ে যায় কারণেই পাতার মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আয়রন যেগুলি মিউকাস ক্ষরণে প্রতিরোধ করে।

আরো পড়ুন: কুলেখাড়া পাতার উপকারিতা

 মাড়ি দিয়ে রক্ত পড়া:

যাদের মাড়ি দিয়ে রক্ত পড়া সমস্যা রয়েছে সেই সকল ব্যক্তিরা পেয়ারা পাতা চিবিয়ে খান তাহলে অনেকটাই আরাম পাবেন এবং মুখের যাবতীয় সমস্যাগুলি দূর হয়ে যাবে।

 চুল পড়া বন্ধ:

স্নান করার ঠিক ঘন্টাখানেক আগে পেয়ারা পাতার রস গরম জলে ফুটিয়ে চুলের মধ্যে লাগালে চুল পড়া সমস্যা অনেকটাই কমে যায়। এমনকি খুশকির সমস্যাও দূর হয়ে যায়।

নতুন চুল গজাতে যেভাবে ব্যবহার করবেন পেয়ার পাতা:

  • একটি পাত্রে পানি নিয়ে তাতে বেশ কয়েকটা পেয়ারা পাতা দিন।
  • ২০ মিনিট ধরে ওই পানি ফুটিয়ে নিন ৷
  • পানি ফুটে গেলে পেয়ারা পাতার কাৎ তৈরি হবে ৷
  • ঠাণ্ডা করে তা চুলে ও স্কাল্পে লাগিয়ে নিন ৷
  • দুই থেকে তিন ঘণ্টা মাথায় রাখুন ৷
  • রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে পেয়ারার কাৎ মাথায় মাখলে কার্যকরী ফল পাওয়া যাবে।

মস্তিষ্ক কে সুস্থ রাখে:

পেয়ারা পাতার মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি৩ এবং বি৬ যা আমাদের মস্তিষ্কের জন্য একটি অপরিহার্য উপাদান।

নিয়মিত পেয়ারা পাতার রস খাওয়া হলে মস্তিষ্কের মধ্যে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পায় এবং আমাদের মনঃসংযোগ আরো ভালো হতে শুরু করে।

ব্রণ দূর করে:

  • যারা ব্রণের সমস্যায় ভুগে থাকেন তাদের জন্য পেয়ারা পাতা ভীষণ উপকারী।
  • কারণ এই পাতার মধ্যে থাকা ভিটামিন সি কমিয়ে দিতে সাহায্য করে এবং শুধু তাই নয় মুখের যাবতীয় কালচে কালচে দাগ বা ছোপ গুলোকেও দূর করে দেয়।
  • এটি লাগাবার নিয়ম হলো পেয়ারা পাতা ভালো করে পিষে সেই রস ওই আক্রান্ত স্থানের উপর প্রলেপ করুন।
  • দেখবেন কিছুদিনের মধ্যেই আপনার এই সমস্ত সমস্যাগুলি দূর হয়ে গেছে।

আরো পড়ুন: লবঙ্গের উপকারিতা ও অপকারিতা

পেয়ারা পাতার চায়ের উপকারিতা:

দাঁত ব্যথা:‌

পেয়ারা পাতার চা দাঁত ব্যথা, মাড়ি ফুলে যাওয়ার মতো রোগ সারাতে পারে। পাতা বাটা পেস্ট করে দাঁত মাজলেও উপকার পাবেন।

ওজন হ্রাস:‌ 

মানবদেহের জটিল শ্বেতসারকে ঝরাতে সাহায্য করে পেয়ারা পাতায় থাকা পুষ্টি উপাদান। তাই পেয়ারা পাতার রস বা চা খেতে পারেন।

ডায়াবেটিস (পেয়ারা পাতার চায়ের উপকারিতা):

পেয়ারা পাতাকে ডায়াবেটিসের চিকিৎসায় ব্যবহার করা যায়।

খাওয়াদাওয়ার পর পেয়ারা পাতার চা খেলে রক্তের দু‌ই ‌ধরনের সুগার- সুক্রোজ এবং মেলাটোজ যথেষ্ট নিয়ন্ত্রণে থাকে।

কোলেস্টেরল:‌

একটি গবেষণায় দেখা গেছে, পেয়ারা পাতার চা আট সপ্তাহ খেলে শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা উল্লেখযোগ্যভাবে কমে যায়।

ডায়রিয়া:

 এই রোগের জন্য দায়ী ব্যাকটেরিয়াকে নির্মূল করার ক্ষমতা রাখে পেয়ার পাতার চা। সাধারণ পেটের ব্যথা কমাতেও এটা অতুলনীয়।

আরো পড়ুন: গ্রীন টি এর উপকারিতা

পেয়ারা পাতার অপকারিতা:

পেয়ারা পাতার উপকারিতা,পেয়ারা পাতা,
পেয়ারা পাতা
ব্যাকটেরিয়া:

পেয়ারার চামড়া ফাটা বা ক্ষতিগ্রস্থ থাকে তবে তাতে ব্যাক্টেরিয়ার দ্বারা সংক্রামিত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তাই পেয়ারা উপরের চামড়া ফেলে দিয়ে খাওয়া বযাক্টেরিয়ার উপদ্রব থেকে রেহাই দিতে পারে।

পেট ফাপা:

পেয়ারা একটি উচ্চ ফ্রুক্টোজ সমৃধ ফল। অধিক পরিমাণে পেয়ারা খেলে এর খনিজ এই উপাদানটি আমাদের এবং সাথে কিছু ব্যাক্টেরিয়া মিলে পেটে গ্যাস উতপন্ন করে এবং পেট ফাপা অনুভূত হয়।

সুগার বৃদ্ধি:

অধিক পেয়ারা খেলে আপনার ব্লাড সুগার বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল।

ডাইরিয়া এবং পেটের পীড়া:

উচ্চ মাত্রার ফ্রুক্টজ হজম করতে না পারার কারনে অনেক সময় ডাইরিয়া এবং পেটব্যাথা হতে পারে।

এই ছিলো পেয়ারা পাতার উপকারিতা ও অপকারিতা ভালো লাগলে ,অবশ্যই লাইক কমেন্ট শেয়ার করবেন।

Photo by parvej alam on Unsplash

সূত্র: অনলাইন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *