গোল মরিচের উপকারিতা – গোলমরিচের গুনাগুন

গোল মরিচের উপকারিতা ও গোলমরিচের গুনাগুন: আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য গোল মরিচের উপকারিতা অনেক। তাছাড়া গোল মরিচের পুষ্টিগুণ রয়েছে প্রচুর। এটি আমাদের রান্না ঘরের খুব পরিচিত মসলা। এটি রান্নার যেমন স্বাদ বাড়ায় ঠিক স্বাস্থ্য সুরক্ষায় অনেক অবদান রাখে। নিয়মিত তিন থেকে চারটি গোল মরিচ খেলে শরীরের অনেক সমস্যা সমাধান হবে। শরীরের অতিরিক্ত মেদ ঝরাতে গোল মরিচ খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। গোলমরিচের এমন কিছু উপাদান আছে যা আমাদের অতিরিক্ত কোলেস্টেরল কমাতে কার্যকরি ভুমিকা পালন করে। এটি খেতে একটি ঝাঁঝালো হলেও এর গুনের শেষ নেয়। এটি খেলে সর্দি-কাশি থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। আর ও গোলমরিচের অসাধারণ উপকারিতা জেনে নিই।

গোলমরিচের গুনাগুন:

দেখতে ছোট হলেও গোল মরিচের পুষ্টি উপাদান অনেক। এটিতে রয়েছে প্রচুর পরিমানে প্রোটিন , ক্যালসিয়াম, আয়রন ,শর্করা ছাড়াও অনেক পুষ্টিগুণ। গোল মরিচের ভেষজ গুণ থাকায় এর চাহিদা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই গোলমরিচের পুষ্টি উপাদান যেনে নিই।
প্রতি ১০০ গ্রাম গোল মরিচে আছে
উপাদান পরিমান
ক্যালসিয়াম ৮৬০ মি.গ্রাম
আয়রন ১৬.৮ মি.গ্রা
প্রোটিন ১১.৫ গ্রাম
শর্করা ৮৯.২গ্রাম
ফ্যাট ৬.৮ গ্রাম
ফসফরাস ১৯৮ মি. গ্রাম
ভিটামিন B ১ ০.০৯ মি.গ্রাম
ভিটামিন B২ ০১.৪মি.গ্রাম

আরো পড়ুন: পুদিনা পাতার উপকারিতা

গোল মরিচের উপকারিতা:

অসাধারণ গুণে গুণাননিত এই গোলমরিচ। এটিতে প্রচুর পরিমানে ক্যালসিয়াম রয়েছে। যা আমাদের দেহের হাঁড় ও হাঁত মজবুত করতে কার্যকরী ভুমিকা পালন করে। এছাড়া এটি আমাদের হাড় গঠনে কাজ করে থাকে। প্রতিদিন কয়েকটি করে গোলমরিচ খেলে শীরের নানাবিধ সমস্যা দূর হয়। তাছাড়া আর ও কিছু গোলমরিচ খাওয়ার উপকারিতা জেনে নিই।

১ বর্তমান সময়ে আমাদের কম বেশি অনেকের ঠান্ডা কাশির সমস্যা দেখা যায়। গোল মরিচ খেলে কফ-ঠান্ডাজনিত সমস্যা দূর হয়ে যায়। এটি শুধু শুধু চিবিয়ে বা ভাতের সাথে খাওয়া যায়।

২ গোল মরিচে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আছে। যা আমাদের উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে থাকে। আবার এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে থাকে। ফলে অনেক অসুক থেকে সুস্থ রাখে।

আরো পড়ুন: শাহী দানার উপকারিতা

৩ প্রতিদিন সকালে ২থেকে ৩তিনটি গোলমরিচ খেলে অন্ত্রের হাইড্রোক্লোরিক অ্যাসিড নিঃসরণ বাড়িয়ে হজমে সাহায্য করে।

৪ যাদের অতিরিক্ত কোলেস্টেরল আছে তারা নিয়মিত এটি খেলে মেদ কমার সম্ভাবনা অনেক থাকে।

৫ এটি শুধু খাওয়ায় যায় তা কিন্তু নয়।এটির তেল তৈরি করে ব্যাথা ও যন্ত্রণায় লাগালে ভালো কাজ দেয়।

৬ মুখের ব্রণ দূর করতে বর্তমানে গোলমরিচ ব্যবহার করা হচ্ছে।

৭ এটিতে এমন কিছু উপাদান আছে যা ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি ব্যাহত করে, এবং ক্যান্সার প্রতিরোধে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।

আরো পড়ুন: থানকুনি পাতার উপকারিতা

Photo Credit: Pixabay

সূত্র : অনলাইন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *