গোলাপ ফুলের উপকারিতা

আসসালামু আলাইকুম, গোলাপকে বলা হয় ফুলের রাণী। এইটিকে আমরা সবাই ফুল হিসেবে ব্যবহার করে থাকি।কিন্তু গোলাপ ফুলের উপকারিতা অনেক, যা অবাক করার মত।

গোলাপ ফুুল আমাদের স্বাস্থ্য হতে শুরু করে, রূপচর্চায়ও অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।গোলাপ খুবই উপকারি একটি ফুল।তাই আজকে আমরা জানবো, গোলাপ ফুলের উপকারিতা সম্পর্কে।

গোলাপ ফুলের উপকারিতাঃ

ওজন কমাতেঃ

গোলাপের পাপড়ির মধ্যে এমন উপাদান আছে যা মেটাবোলিজমের উন্নতি ঘটায় এবং শরীর থেকে টক্সিন বের করে দেয়। রোজ টি খেলে ওজন কমাতে সাহায্য করে।

অতিরিক্ত মেদ ঝরাতেঃ

গরম জলে টাটকা গোলাপের পাপড়ি দিন এবং জলের রঙ ফ্যাকাসে লাল হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। মিশ্রণের মধ্যে সামান্য মধু ও দারচিনির পাউডার মেশান। অতিরিক্ত মেদ ঝরাতে রোজ এই চা খান।

আরো পড়ুন: মরিয়ম ফুলের উপকারিতা

চাপ,ক্লান্তি কমায়ঃ

অবসাদ-ক্লান্তি এবং চাপ-ধকল থেকে ইনসোমনিয়া এবং অস্থিরতা-ছটফটানি হয় যা থেকে উদাসীনতা এবং অস্বস্তি বাড়ে। গোলাপের পাপড়ি এবং তার সুবাস এই সমস্যা দূর করতে পারে।

শরীরে ভালো অনুভূতি জাগায়ঃ

গরম জল বানিয়ে তার মধ্যে কয়েকটা গোলাপের পাপড়ি ছড়িয়ে দিন। গরম ভাব ফুলের সুবাস বের করে। শরীর এবং মনকে আরাম দেবার জন্য এই জল দিয়ে স্নান করুন।

অর্শের সমস্যা দূরীকরণঃ

গোলাপের পাপড়িতে পর্যাপ্ত পরিমাণে ফাইবার এবং জলীয় উপাদান থাকে। এর মধ্যের উপাদান শরীর থেকে টক্সিন বের করে দিয়ে হজমে সাহায্য করে। এগুলো অর্শের রক্তপাত বন্ধ করে।

অ্যাস্ট্রিনজেন্ট হিসেবে কার্যকারিঃ

গোলাপ জল ত্বকের জ্বালা ফুসকুড়ি নিরাময় করে, ত্বকে তেলের ভারসাম্য বজায় রাখে ও তাকে নমনীয় বানায়। এটা যথোপযুক্ত অ্যাস্ট্রিনজেন্ট।

ত্বকের যত্নে গোলাপ ফুুল:

গভীর ক্লিনজার ও টোনার হিসেবে কাজ দেয়। এটা আপনাকে স্বাভাবিকভাবে কম বয়সী করে দেয়।

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতেঃ

গোলাপের পাপড়ির মধ্যে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান থাকে। ত্বকের অস্বস্তি এবং চুলকানির উপশম করে ত্বককে আরাম করে। ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়াতে রোজ গোলাপ জল দিয়ে মুখ ধোবেন।

ব্রণ নিরাময়েঃ

গোলাপ জল একটা উৎকৃষ্ট ময়েশ্চারাইজার। এর মধ্যে ফিনাইল ইথানল এবং অ্যান্টিসেপ্টিক উপাদান থাকে যা ব্রণ কমায়। গোলাপের পাপড়ির অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল গুণ ব্রণকে শুকিয়ে দেয়।

আরো পড়ুন: জবা ফুলের উপকারিতা

অরুচি দূর করবেঃ

অরুচি দেখা দিলে গোলাপের পাপড়ি বেটে মধুর সাথে মিশিয়ে খেলে উপকার পাওয়া যায় ।

পিত্তজনিত সমস্যা দূর করেঃ

অর্ধেক ফোটা গোলাপ ফুল বেটে অল্প পরিমাণ চিনির সাথে মিশিয়ে প্রতিদিন খেলে পিত্তজনিত বমন দূর হয়।

আশা করি,গোলাপ ফুলের উপকারিতা সম্পর্কে জেনে আপনেরা উপকৃত হবেন এবং বাস্তব জীবনে প্রয়োগ ঘটাবেন।

Image by Peggy Choucair from Pixabay

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *