কর্পূরের উপকারিতা

কর্পূরের উপকারিতা: উপকারী এক পদার্থের নাম কর্পূর। গৃহস্থালি নানা কাজ থেকে শুরু করে অনেক রোগের প্রতিষেধক এটি। গলা ব্যথা, সর্দি, আঘাতের উপশম, পিঁপড়া এবং ছারপোকা নাশক সহ নানাবিদ কাজে লাগে কর্পূর।

কর্পূরের উপকারিতা:

মশা-মাছি তাড়াতে:

ঘরের কোনায় কোনায় ছড়িয়ে দিন মশা-মাছি ঘর থেকে পালাবে ও সেই সাথে ঘরের দুর্গন্ধ দূর কাজ করে।

পিঁপড়ে দূর করতে:

জলের সঙ্গে কর্পূর মিশিয়ে ঘর মুছে নিতে পারেন অথবা ঘরের কোনায় কোনায় ছড়িয়ে দিন কর্পূর। দেখবেন পিঁপড়েরা ঘর ছেড়ে পালাবে।

আরো পড়ুন: আখরোটের উপকারিতা

ছারপোকা তাড়াতে:

কয়েকটি কর্পূরের টুকরো কাপড়ে মুড়ে বিছানা ও ম্যাট্রেসের মাঝামাঝি রেখে দিন। এতে আপনার বিছানা ছারপোকা মুক্ত হবে।

ত্বকের সমস্যায়:

ত্বকের চুলকানি বা র‍্যাশের সমস্যায় কার্পুরকে কাজে লাগানো যায় । এর জন্য প্রথমে এক টুকরো কর্পূর সামান্য জলের সঙ্গে মিশিয়ে একটি দ্রবণ তৈরী করে নিন। তারপর ত্বকের সেই আক্রান্ত স্থানটি এই দ্রবণ দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

দেখবেন স্কিনের চুলকানি ভাব আর র‍্যাশের সমস্যা মুহূর্তে কমে যাবে। এই টোটকাটি এপ্লাই করে দেখতে পারেন তবে কখনওই শরীরের কোনও ক্ষত স্থানে বা কেটে যাওয়া স্থানে কর্পূর লাগাবেন না। কারণ, কর্পূর রক্তের সঙ্গে মিশে গেলে শরীরে বিষক্রিয়া হতে পারে। এতেও যদি চুলকানি না কমে তাহলে অবশ্যই ডাক্তার দেখিয়ে নেবেন।

শিশুর ঠান্ডা লাগলে:

অনেক সময় ঠান্ডা লেগে শিশুর বুকে কফ জমে যায়।এক্ষেত্রে শিশুর বুকের কফ দূর করতে বা সর্দিতে নাক বন্ধ সারাতে কাজে লাগাতে পারেন কর্পূর। এর জন্য নারিকেল তেল বা সরষের তেলের সঙ্গে সামান্য কর্পূর মিশিয়ে উষ্ণ গরম করে শিশুর বুকে ও পিঠে মালিশ করে দেখুন। দ্রুত সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।

রূপচর্চা:

মুখে ব্রণ বা ব্রণর দাগ সারাতে কয়েক ফোঁটা কর্পূর যে কোনো এসেনশিয়াল অয়েল বা অন্য কোনও তেলের সঙ্গে মিশিয়ে ব্রণ আক্রান্ত ত্বকে লাগালে ব্রণ ও ব্রণের দাগ দূর হয়ে যায়।

চুল ঝরা সমস্যা দূর করতে:

মাথায় নিয়মিত যে তেল ব্যবহার করেন তার সঙ্গে কর্পূর মিশিয়ে একটু গরম করে মাথার স্ক্যাল্পে মালিশ করুন।

কিছুদিন এই ভাবে ব্যবহার করলে চুলের গোড়া শক্ত হয়ে চুল ঝরার পরিমাণ অনেকটা কমে যায়।

আরো পড়ুন: পাথরকুচি পাতার উপকারিতা

মাথার উকুনের ঘরোয়া প্রতিকার:

কি ভাবে ব্যবহার করবেন?

  • নারকেল তেলে গুঁড়ো কর্পূর কিছুটা যোগ করে মিশিয়ে নিন|
  • তেলটাকে সামান্য গরম করে নিতে পারেন।
  • ঘুমানোর আগে এই কর্পূর মিশ্রিত তেলটি মাথার স্ক্যাল্পে এবং চুলে ভালোভাবে লাগিয়ে নিন।
  • পরের দিন শ্যাম্পু করে চুলটাকে ধুয়ে নিন।
  • দেখবেন খুব তাড়াতাড়ি মাথায় একটিও উকুনও খুঁজে পাওয়া যাবে না।

এটির কারণ কর্পূরের বিশেষ গুণ উকুনের শ্বাসরোধ করে তাদের হত্যা করে, যার ফলে খুব সহজেই উকুনের হাত থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

অস্টিও-আর্থারাইটিস নিরাময়ে:

  • মলমের বদলে কর্পূর পেস্টটি একবার ব্যবহার করেই দেখুন।
  • কর্পূর গুঁড়ো জলে মিশিয়ে হাঁটুতে বা যে জয়েন্টে ব্যাথা সেখানে লাগান।
  • আপনি চাইলে আপনার মলমের সাথে মিশিয়েও লাগাতে পারেন।
  • কর্পূরের বিশেষ মেডিসিনাল প্রপার্টি অস্টিও-আর্থারাইটিসের ব্যাথা খুব দ্রুততার সাথে কমিয়ে দেবে।

আরো পড়ুন: ড্রাগন ফলের উপকারিতা

ঘুমের ঔষধ:

রাতে ঘুম না এলে বালিশে একটু কর্পূর ঘষে নিন, এই পদ্ধতি খুব সহজে আপনাকে ঘুম পাড়াতে সাহায্য করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *